ঝিনাইদহে স্কুলছাত্রী ধর্ষণ মামলায় তিন বখাটের যাবজ্জীবন


আজকের চুয়াডাঙ্গা➤ ঝিনাইদহ প্রতিবেদক প্রকাশের সময় : নভেম্বর ৮, ২০২৩, ৮:৫৮ অপরাহ্ণ
ঝিনাইদহে স্কুলছাত্রী ধর্ষণ মামলায় তিন বখাটের যাবজ্জীবন

ঝিনাইদহে সপ্তম শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে দলবদ্ধভাবে ধর্ষণ করার দায়ে তিনজনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেছেন আদালত। বুধবার (০৮ নভেম্বর) দুপুরে ঝিনাইদহের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মিজানুর রহমান এই রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বড় কামারকুন্ডু গ্রামের কওসার আলীর ছেলে মফিজুর রহমান, দরিগোন্দিপুর গ্রামের ছব্দুল হোসেনের ছেলে রিংকু ও একই গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে মিঠু। এদের মধ্যে রিংকু পলাতক রয়েছেন। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মো. বজলুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

মামলার রায় সূত্রে জানা গেছে, ওই শিক্ষার্থী ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বড় কামারকুন্ডু গ্রামে খালার বাড়িতে থেকে শিকারপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সপ্তম শ্রেণিতে পড়াশো করতো। স্কুলে যাওয়া-আসার পথে এলাকার বখাটে মফিজুর রহমান, রিংকু ও মিঠু প্রায়ই তাকে কু-প্রস্তাব দিত। এতে রাজি না হওয়ায় তাকে হুমকি দিত দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা।

২০১১ সালের ১৮ মার্চ দিবাগত রাত একটার দিকে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘর থেকে বের হয় ওই শিক্ষার্থী। বাথরুম থেকে আবার রুমে প্রবেশের সময় আসামিরা ওই শিক্ষার্থীকে তুলে নিয়ে বাড়ির পাশে পুকুর পাড়ে দলবদ্ধভাবে ধর্ষণ করে। ঘটনার দুই দিন পর ধর্ষণের ঘটনাটি জানাজানি হয়ে গেলে ২১ মার্চ ঝিনাইদহ সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করা হয়।

মামলার তদন্ত শেষে পুলিশ ওই বছরের ৮ আগস্ট আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। ১৩ বছর পর মামলার শুনানি শেষে সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত বুধবার তিন ধর্ষককে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন। দণ্ডপ্রাপ্ত রিংকু ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছে।

আজকের চুয়াডাঙ্গা এর সংবাদ সবার আগে পেতে Follow Or Like করুন আজকের চুয়াডাঙ্গা এর ফেইসবুক পেজ এ , আজকের চুয়াডাঙ্গা এর টুইটার এবং সাবস্ক্রাইব করুন আজকের চুয়াডাঙ্গা ইউটিউব চ্যানেলে