দর্শনা হানাদার মুক্ত দিবস আজ, থাকছে নানা আয়োজন


আজকের চুয়াডাঙ্গা➤ দর্শনা প্রতিবেদক প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ৪, ২০২৩, ১২:০৯ পূর্বাহ্ণ
দর্শনা হানাদার মুক্ত দিবস আজ, থাকছে নানা আয়োজন

৪ ডিসেম্বর দর্শনা মুক্ত দিবস আজ। ১৯৭১ সালের ৩ ডিসেম্বর রাতে দর্শনায় পাক-হানাদার বাহিনীর অবস্থান র‌্যাকি করে মুক্তিযোদ্ধা ও মিত্র-বাহিনী যৌথ অভিযান চালিয়ে ৪ ডিসেম্বর দর্শনা মুক্ত করা হয়। ৩রা ডিসেম্বর দিনগত রাতে পরানপুর ধাপাড়ী, তালতলা, ডাঙ্গাপাড়া ও উথলী মাঠে সন্ধ্যারাত থেকে যৌথ বাহিনী বাংকার কেটে অবস্থান নেয়।

এরপর রাত ৩টা থেকে সকাল সাড়ে ৬টা পর্যন্ত যৌথ বাহিনী, পাক-বাহিনীর ওপর এক নাগাড়ে ত্রিমুখী আক্রমণ চালায়। এরপর একের পর এক পাক-বহিনীর ওপর মুর্হুমুর্হু গুলি মর্টারগান বর্ষণ ও সেল নিক্ষেপ শুরু করে যৌথ-বাহিনী। তিন দিক থেকে যৌথ-বাহিনীর আক্রমণে পাক-হানাদার বাহিনী দিশাহারা ও নাস্তানাবুদ হয়ে পড়ে।

এরপর কোনো দিশা না পেয়ে দর্শনা এলাকা ছেড়ে পাক-হানাদার বাহিনী সড়ক ও রেলপথ ধরে চুয়াডাঙ্গা শহরের দিকে পালাতে থাকে। যৌথ-বাহিনীর হামলায় বহু পাকিস্তানি সৈন্য নিহত হয় বলে যুদ্ধকালীন কমান্ডার লিয়াকত আলী জানান।

জীবন বাজি রেখে দেশকে বাঁচাতে এ দেশের সূর্য্য সন্তানেরা ও যৌথ-বাহিনীর সহযোগিতায় দর্শনা মুক্ত করেন। রাতভর যুদ্ধ শেষে ৪ ডিসেম্বর দর্শনা মুক্ত হলে সকাল ৭টার দিকে দর্শনা কেরু চিনিকলের জেনারেল অফিসের সামনে যৌথ-বাহিনীর কমান্ডার মিস্টার বুফে ও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার লিয়াকত আলীর নের্তৃত্বে লাল-সবুজের পতাকা উড়িয়ে উল্লাস করেন বীর সেনারা। নিজ মাতৃভূমিকে নিজেদের দখলে নেয় সূর্য্য সেনারা।

যুদ্ধকালীন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার লিয়াকত আলী জানান, ১৯৭১ সালের ৩রা ডিসেম্বর সন্ধ্যায় দর্শনা সীমান্তের ওপারে ভারতের গেদে সীমান্তে মুক্তিযোদ্ধা ক্যাম্পে খবর আসে দর্শনার পার্শ্ববর্তী এলাকা ও পরানপুর বেলে মাঠে পাক-হনাদার বাহিনী বাংকার করে অবস্থান নিয়ে আছে।

এ খবর পেয়ে ৩রা ডিসেম্বর সন্ধ্যারাতের খাবার খেয়ে যুদ্ধকালীন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার লিয়াকত আলীর নের্তৃত্বে ৩০ জনের মুক্তিযোদ্ধা দল ও ভারতীয় যৌথ-বাহিনী দর্শনার উত্তর-পশ্চিম প্রান্ত পরানপুর ধাপাড়ী, তালতলা, ডাঙ্গাপাড়া ও উথলী প্রান্ত থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুর রহমানের নের্তৃত্বে মুক্তিযোদ্ধা দল ও অপর একটি যৌথ-বাহিনী ত্রিমুখী একযোগে হামলা চালিয়ে পাক-হানাদার বাহিনীকে প্রতিহত করা হয়। দর্শনাকে মুক্ত করে যৌথ-বাহিনী। এরপর থেকে দর্শনা মুক্ত দিবস হিসেবে পালন করে আসছে দর্শনাবাসী।

এদিকে, দর্শনা মুক্ত দিবস উপলক্ষে আজ সোমবার (০৪ ডিসেম্বর) বেলা তিনটায় দর্শনা পৌর আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশ ও দর্শনা মুক্ত দিবসের ওপর আলোচনা সভায় অনুষ্ঠিত হবে।

আজকের চুয়াডাঙ্গা এর সংবাদ সবার আগে পেতে Follow Or Like করুন আজকের চুয়াডাঙ্গা এর ফেইসবুক পেজ এ , আজকের চুয়াডাঙ্গা এর টুইটার এবং সাবস্ক্রাইব করুন আজকের চুয়াডাঙ্গা ইউটিউব চ্যানেলে