জীবননগর উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত


আজকের চুয়াডাঙ্গা➤ জীবননগর প্রতিবেদক প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১১, ২০২৩, ১:৫৫ অপরাহ্ণ
জীবননগর উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

জীবননগর উপজেলা আইনশৃঙ্খলা, চোরাচালান প্রতিরোধ ও সন্ত্রাস প্রতিরোধ কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১১ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় জীবননগর উপজেলা পরিষদের সভাকক্ষে এই সভার আয়োজন করা হয়।
সভায় সভাপতিত্ব করেন জীবননগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) হাসিনা মমতাজ।

প্রধান অতিথি ছিলেন জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. হাফিজুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তিথি মিত্র, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম ঈসা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েশা সুলতানা লাকী ও জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস এম জাবীদ হাসান।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন হাসাদাহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম বিশ্বাস, সীমান্ত ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইশাবুল ইসলাম মিল্টন, উথলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান, বীর মুক্তিযোদ্ধা সাইদুর রহমান, জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সেলিমা আক্তার, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা জাকির হোসেন মোড়ল, জীবননগর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা জালাল উদ্দীন, জীবননগর সাংবাদিক সমিতির সভাপতি জিএ জাহিদুল ইসলাম জাহিদ বাবু প্রমুখ।

সভায় জীবননগর সাংবাদিক সমিতির সভাপতি জাহিদ বাবু বলেন, মাদক পাচারকারীদের ধরতে পুলিশ ও বিজিবি সোর্স নিয়োগ দেয়। তবে মাদকদ্রব্য আটকের পর পুলিশ সোর্সদের মাদকের কিছু অংশ ভাগ দেয়। এভাবে চললে তো মাদক নির্মূল করা সম্ভব না। সোর্সদের অন্যভাবে সম্মানি দেওয়ার ব্যবস্থা করলে সমাজ উপকৃত হবে বিষয়টি অস্বীকার করে বিজিবি ও পুলিশের প্রতিনিধিরা।

হাসাদাহ ইউনিয়ন পরিষদের রবিউল ইসলাম বলেন, ‘আমার ইউনিয়নে সম্প্রতি গরুসহ চুরি বেড়ে গেছে। এছাড়া হাসাদাহে ফেনসিডিল চোরাচালান এবং মাদক সেবন বেড়ে গেছে। এ বিষয়ে প্রশাসনের কাছে ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি।’

জীবননগর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তিথি মিত্র বলেন, ‘সম্প্রতি বাঁকা গ্রামে একটি বাল্যবিবাহ হচ্ছিল। আমি সেখানে অভিযানে গেছিলাম। তবে সেই কিশোরী বিয়ে করতে অনড় ছিল। এসব বিষয়ে উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্যালায় থেকে কাউন্সিলিংয়ের ব্যবস্থা করতে হবে।

আর আমি এখানে যোগাযোগ করার পর উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্যালায় থেকে বাল্যবিবাহের বিষয়ে কোনো তথ্য পায়নি। বরং আমি তাদের একটি বাল্যবিবাহের বিষয়ে তথ্য দিয়েছি।’

জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস এম জাবীদ হাসান বলেন, ‘আমাদের কাছে ছোট চুরির ঘটনার বিষয়ে কোনো অভিযোগ করা হয় না। হাসাদাহের চুরির ঘটনায় থানায় কোনো অভিযোগ করা হয়নি।’

জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান হাসাদাহে মাদক সেবন বন্ধে জীবননগর থানার ওসিকে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য অনুরোধ করেন। তিনি বলেন, জীবননগরের সার্বিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভালো আছে। তবে সীমান্ত এলাকায় যুবকদের মোটরসাইকেল নিয়ে ঘোরাঘুরি করতে দেখলে বিজিবিদের জিজ্ঞাসাবাদ করার আহ্বান জানান চেয়ারম্যান।

জীবননগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাসিনা মমতাজ বলেন, শীতে চুরির ঘটনা বাড়ে। পুলিশকে এ বিষয়ে তৎপর থাকতে হবে। আর সীমান্তে চোরাচালান রোধে বিজিবি সদস্যদের সর্তক অবস্থায় থাকতে হবে। সবাইকে অনুরোধ করব, তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করার জন্য, যাতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি খারাপ হতে না পারে। সরকার পেঁয়াজের মূল্য নির্ধারণ করে দিয়েছে। এর বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আজকের চুয়াডাঙ্গা এর সংবাদ সবার আগে পেতে Follow Or Like করুন আজকের চুয়াডাঙ্গা এর ফেইসবুক পেজ এ , আজকের চুয়াডাঙ্গা এর টুইটার এবং সাবস্ক্রাইব করুন আজকের চুয়াডাঙ্গা ইউটিউব চ্যানেলে